কুমারখালী পৌরসভা

কুমারখালী পৌরসভা

কুমারখালী পৌরসভাটি কুষ্টিয়া জেলার পূর্বে অবস্থিত। এটি “ক” শ্রেণির পৌরসভা। এর উত্তরে পদ্মা নদী, দক্ষিণে গড়াই নদী ও পূর্বে কুষ্টিয়া জেলার অপর একটি উপজেলা খোকসা। পৌরসভাটি ১ এপ্রিল ১৮৬৯ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়।
দেশ বিভাগের সময় ৩০/১২/১৯৪৯ থেকে ০১/০১/১৯৫৫ সাল পর্যন্ত রেবতী মোহন সাহা চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।
বাংলাদেশ স্বাধীনের পর প্রথম নির্বাচিত চেয়ারম্যান মোঃ আফছার উদ্দিন জোয়ার্দ্দার।
পৌরসভার অফিস ১.৫ একর জমির অবস্থিত। অফিসের সামনে সুসজ্জিত একটি ফটক রয়েছে। রয়েছে বিশাল একটি পুকুর এবং অফিস ভবনের চারপাশে বৃক্ষরাজি দ্বারা সুবিন্যস্ত। ৯টি ওয়ার্ড দ্বারা গঠিত পৌরসভাটিতে বর্তমানে ১২ জন কাউন্সিলর নিয়ে মেয়র মোঃ সামছুজ্জামান অরুন, পৌর পরিষদ পরিচালনা করছেন।
কুমারখালী পৌরসভায় ১টি শিশু পার্ক, ৩টি অডিটোরিয়াম, ১টি রেলওয়ে স্টেশন, ১টি বাস টার্মিনাল, ১টি মহাবিদ্যালয় ও ১টি মহিলা মহাবিদ্যালয় আছে। ২টি গার্ভেজ ট্রাকের মাধ্যমে প্রতিদিন আবর্জনা অপসারণ করা হয় এবং ৩টি ওয়াটার পাম্প-এর মাধ্যমে ৬০% লোকের পানি সরবরাহ করা হয়।

পৌরসভা সদস্যগণ
মেয়র মো: সামছুজ্জামান অরুন
প্যানেল মেয়র মোঃ হারুন-অর-রশিদ
মোঃ জুলফিকার আলী
কাউন্সিলর মো. আনিসুর রহমান
এস এম রফিকুল ইসলাম
মোঃ আকামুদ্দিন আকাই শেখ
মোঃ হারুন-অর-রশিদ
মোঃ জুলফিকার আলী
সাধারন তথ্যাবলী
স্থাপিত ১লা এপ্রিল ১৮৬৯ সাল
শ্রেণী
আয়তন ১০.৫০ বর্গ কিঃ মিঃ
ওয়ার্ড ০৯টি
কাউন্সিলার ১২ জন
কর্মকর্তা/কর্মচারী ৬২জন
হোল্ডিং সংখ্যা ৫০৮১টি, সরকারী ৮৮টি, বাণিজ্যিক ২০২২টি, বেসরকারী ২৯৭১টি
মোট জনসংখ্যা ৬০,০০০জন প্রায়, পুরুষ ৩০,৭৭৫ জন, মহিলা ২৯,২২৫ জন
শিক্ষা প্রতিষ্ঠান
সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়১০টি (সরকারী বে-সরকারীসহ)
সরকারী উচ্চ বিদ্যালয়৪টি (বালিকা ২টি সহ)।
সরকারী কলেজডিগ্রি মহাবিদ্যালয় ২টি (মহিলা একটি সহ)।
মাদ্রাসা৪টি
গণ গ্রন্থাগার১টি
অবকাঠামো ও সরবরাহ সেবা
মোট রাস্তা৮০কিঃমিঃ প্রায় (গলি ও উপগলি সহ)। পাকা ৬৫কিঃমিঃ, কাঁচা ১৫কিঃমিঃ।
মোট ড্রেন২০ কিঃমিঃ প্রায়, পাকা ১০কিঃমিঃ, কাঁচা ১০কিঃমিঃ।
পানির লাইন সংযোগ সংখ্যা১৮.৫৬৮ কিঃমিঃ সুবিধাভোগী, গ্রাহক সংখ্যাঃ ৮৫০টি
ধর্মীয় ও সামাজিক প্রতিষ্ঠান
মসজিদ২১টি
মন্দির১০টি
কবরস্থান৩টি
শশ্মান ঘাট১টি
ঈদগাহ মাঠ৪টি
শিশু পার্ক১টি
স্টেডিয়ামক্রীড়া ময়দান : ৫টি
স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা
সরকারী হাসপাতাল১টি


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Time limit is exhausted. Please reload CAPTCHA.