শ্রীলঙ্কাকে কাঁদিয়ে নিদাহাস ট্রফির ফাইনালে টিম টাইগার

শ্রীলঙ্কাকে কাঁদিয়ে নিদাহাস ট্রফির ফাইনালে টিম টাইগার

স্পোর্টস ডেস্ক : নাটকীয় জয় বলবো নাকি শ্বাসরুদ্ধকর জয়। পেন্ডুলামের মতোই দুলছিল ম্যাচের ভাগ্য। উত্তেজনায় রীতিমতো কাঁপছিল দর্শক তথা ক্রিকেটপ্রেমীরা। ‘নাগিন নাচ’ও শুরু করেছিল লঙ্কান সমর্থকরা। কিন্তু শেষ পর্যন্ত জয়ী টিম টাইগার। স্বাগতিক শ্রীলঙ্কাকে কাঁদিয়ে নিদাহাস ট্রফির ফাইনালে পৌঁছে গেল টিম টাইগার। ১ বল হাতে রেখে ছক্কা হাঁকিয়ে দলকে জয়ের বন্দরে পৌঁছে দেন মাহমুদ উল্লাহ রিয়াদ। ২ উইকেটের এই জয়ে আগামী ১৮ মার্চ শিরোপার লড়াইয়ে ভারতের মুখোমুখি হবে সাকিব আল হাসানের দল।

কলম্বোর আর. প্রেমাদাসা স্টেডিয়ামে ১৬০ রানের টার্গেটে ব্যাটিংয়ে নেমে তামিমের উড়ন্ত সূচনার পর ধাক্কা খায় বাংলাদেশ। দলীয় ১১ রানে আকিলা ধনাঞ্জয়ার বলে কোনো রান না করেই ক্যাচ দেন লিটন দাস। অনেকদিন পর তিন নম্বর পজিশনে দেখা যায় সাব্বির রহমানকে। কিন্তু আবারও ব্যর্থ হন তিনি। ৮ বলে ৩ চারে ১৩ রান করে ধনাঞ্জয়ার বলেই স্টাম্পড হন তিনি। ৩৩ রানে দ্বিতীয় উইকেট হারানোর পর দলের হাল ধরেন তামিম-মুশফিক। কিন্তু আজ আর ইনিংস বড় করতে পারেননি ‘মি. ডিপেন্ডেবল’। ২৫ বলে ২৮ রান করে অপোনসোর বলে পেরেরার তালুবন্দি হন।

৪১ বলে ৪টি চার এবং ১ ছক্কায় ক্যারিয়ারের পঞ্চম হাফ সেঞ্চুরি তুলে নেন দেশসেরা ওপেনার তামিম ইকবাল। কিন্তু ৫০ রানেই গুনাথিলাকার বলে উইকেটের পেছনে ক্যাচ দেন তিনি। সৌম্য সরকার যথারীতি ব্যর্থ। ১১ বলে ১০ রান করে জীবন মেন্ডিসের বলে সেই উইকেটের পেছনেই ধরা পড়েন। এরপর মাহমুদ উল্লাহ রিয়াদের সঙ্গে হাল ধরার চেষ্টা করেও উদানার বলে ধনাঞ্জয়ার তালুবন্দি হন অধিনায়ক সাকিব (৭)।

মেহেদী মিরাজকে নিয়ে লড়াই শুরু করেন মাহমুদ উল্লাহ। কোনো রান না করেই রান-আউট হয়ে যান মিরাজ। গ্যালারিতে লঙ্কান সমর্থকেরা তখন রীতিমতো ‘নাগিন নৃত্যে’ গ্যালারি কাঁপাচ্ছেন। গত ১০ মার্চ তাদের হারিয়ে এই নাচটাই নেচেছিলেন মুশফিক। কিন্তু বলটি নো বল কিনা এই নিয়ে বিবাদ শুরু হয় দুই দলে। আম্পায়ারদের সঙ্গে তর্কে জড়ান সাকিব। আবারও শুরু হয় খেলা। ২ বলে দরকার ছিল ৬ রানের। ১ বল হাতে রেখেই দলকে জয়ের বন্দরে পৌঁছে দেন মাহমুদ উল্লাহ রিয়াদ। নাগিন নাচ থেমে যায় লঙ্কানদের। গ্যালারি নীরব হয়ে যায় স্তব্ধ। কাঁদতে দেখা যায় কয়েকজনকে। আর বাংলাদেশ পৌঁছে গেল নিদাহাস ট্রফির ফাইনালে।




মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Time limit is exhausted. Please reload CAPTCHA.