বাগমারায় বিএনপি’র সদ্য কমিটি বাতিলের দাবিতে প্রতিবাদ সভা

বাগমারায় বিএনপি’র সদ্য কমিটি বাতিলের দাবিতে প্রতিবাদ সভা

নাজিম হাসান,রাজশাহী প্রতিনিধি:
রাজশাহীর বাগমারা উপজেলা বিএনপি’র অগণতান্ত্রিক পকেট কমিটি বাতিলের দাবিতে ভবানীগঞ্জ শাপলা সিনেমা হল অডিটরিয়ামে গতকাল শনিবার বিকেলে বাগমারা উপজেলা, ভবানীগঞ্জ পৌরসভা ও তাহেরপুর পৌর বিএনপির উদ্যোগে এক প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোনাডাঙ্গা ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান বিএনপি নেতা এ্যাড. মোজাফ্ফর হোসেনের সভাপতিত্বে প্রতিবাদ সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন বাগমারার সাবেক সংসদ সদস্য ও জেলা বিএনপির সিনিয়র সহ-সভাপতি আলহাজ্ব অধ্যাপক এম.এ গফুর। প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি বলেন, বাগমারা উপজেলায় বিএনপির ঘোষিত পকেট কমিটি অনতিবিলম্বে বাতিল করে গণতান্ত্রীক পদ্ধতিতে পুনরায় কমিটি গঠন করতে হবে। বর্তমানে যে কমিটি ঘোষনা করা হয়েছে তা অগণতান্ত্রীক। তিনি আরো বলেন ২০০৮ সালের ২৯ ডিসেম্বর জাতীয় সংসদ নির্বাচনে যারা রাজশাহীর সুকর্ণা হোটেলে বসে বর্তমান এমপি এনামুল হকের নিকট থেকে কোটি টাকা ঘুষ গ্রহণ করে আমাকে সেই নির্বাচনে পরাজিত করেছে। এছাড়াও উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে বিদ্রোহী প্রার্থী থেকে বিএনপি সমর্থিত প্রার্থীকে পরাজিত করে। এবং ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে বিএনপির দলীয় প্রার্থীকে পরাজিত করতে বিদ্রোহী প্রার্থী দাঁড় করিয়ে দেন। সেই সাথে ভবানীগঞ্জ পৌর সভার নির্বাচনে রাতের আঁধারে ঘুষ গ্রহণের মাধ্যমে দলীয় প্রার্থীকে পরাজিত করে। সেই বিশ্বাস ঘাতক তোফাজ্জাল হোসেন তপু এখন জেলা বিএনপির সভাপতি। অপর দিকে বিগত উপজেলা নির্বাচনের বিদ্রোহী প্রার্থী সেই ডি.এম জিয়াউর রহমান জিয়া এখন উপজেলা বিএনপির ঘোষিত পকেট কমিটির সভাপতি। এটা বড়ই লজ্জাষ্কর ব্যাপার এতে করে বিএনপির তৃণমূল পর্যায় থেকে শুরু করে উপর লেভেল পর্যন্ত ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। সেই সকল নেতাকর্মীদের ক্ষোভ নিরশনের জন্যই আজকের এই প্রতিবাদ সভার আয়োজন করা হয়েছে। প্রতিবাদ সভার মাধ্যমে উপজেলার প্রতিটি ইউনিয়নে পুনরায় দলীয় গঠন তন্ত্রের মাধ্যমে কমিটি গঠন করা হবে। সেই কমিটিতে কোন দালাল, ঘুষখোর,চাঁদাবাজ,দলীয় বিশ্বাস ঘাতকের ঠাঁই হবে না। বিপদগামীদের পরিহার করে মূল ধারার বিএনপি ও সহযোগি অঙ্গ সংগঠনের সকল নেতাকর্মীদের ঐক্যবদ্ধ থাকার আহ্বান জানানো হয়। প্রতিবাদ সভায় বক্তারা আরো বলেন, জেলা বিএনপির বিতর্কিত সভাপতি তোফাজ্জাল হোসেন তপু, উপজেলা বিএনপির কথিত পকেট কমিটির সভাপতি ডিএম জিয়াউর রহমান সহ অন্যান্য দলীয় বেঈমানরা ‘র’এর আমন্ত্রণে এখন তারা ভারত সফরে রয়েছেন। অবিলম্বে দলীয় চরদের দল থেকে বহিষ্কারের দাবী জানানো হয়। প্রতিবাদ সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন ভবানীগঞ্জ পৌর বিএনপির সভাপতি ও সাবেক মেয়র আব্দুর রাজ্জাক প্রামানিক, বাগমারা উপজেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি অধ্যাপক মুকলেছুর রহমান, গনিপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান বিএনপি নেতা এ্যাড. মনিরুজ্জামান রঞ্জু, শুভডাঙ্গা ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান বিএনপি নেতা আব্দুল জলিল প্রামানিক, বিএনপি নেতা হাবিবুর রহমান হবি, ভবানীগঞ্জ পৌর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক ও কাউন্সিলর জিল্লুর রহমান, তাহেরপুর পৌর ছাত্রদল সভাপতি আরিফুল ইসলাম আরিফ। উক্ত সভায় অন্যান্যের উপস্থিত ছিলেন মাড়িয়া ইউপি বিএনপি নেতা রফিকুল ইসলাম, হামিরকুৎসা ইউপি বিএনপি নেতা রুমি, জেলা বিএনপি নেতা উপাধ্যক্ষ নূরুল হুদা, আফজাল হোসেন, আব্দুস সালাম, আব্দুর রউফ, মোশাররফ হোসেন, প্রভাষক মাহাবুর রহমান, প্রভাষক সাইফুল ইসলাম, মাস্টার এনামুল হক মৃধা, দুলাল উদ্দীন কবিরাজ, জেলা স্বেচ্ছাসেবক নেতা সহকারী অধ্যাপক আকতারুজ্জামান তপন, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক দল সভাপতি জিল্লুর রহমান, তাহেরপুর পৌর স্বেচ্ছাসেবক দল সভাপতি আমজাদ হোসেন, ছাত্রদল নেতা মনির হোসেন, আতিকুর রহমান জর্জ, এনামুল হক বাবু, আনোয়ার হোসেন প্রমুখ। অপরদিকে প্রতিবাদ সভাকে বানচাল করতে সদ্য ঘোষিত কমিটির নেতাকর্মীরা ভবানীগঞ্জ গরুহাটিতে পাল্টা-পাল্টি সমাবেশ করেন। এতে বক্তব্য রাখেন ঘোষিত কমিটির সাধারণ সম্পাদক উপাধ্যক্ষ আব্দুস সোবহান সহ কমিটির সদস্যবৃন্দ।#