প্যানেল মেয়র জমিরউদ্দিন জাতীয় পুরস্কারে ভূষিত

প্যানেল মেয়র জমিরউদ্দিন জাতীয় পুরস্কারে ভূষিত

এম বেলাল উদ্দিন, রাউজান থেকে : রাউজান পৌরসভার প্যানেল মেয়র ও উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি জমির উদ্দিন পারভেজ আবারো জাতীয় পুরস্কারে ভুষিত হলেন। আজ রোববার ঢাকার চীন মৈত্রী সম্মেলন কেন্দ্রে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাত থেকে বৃক্ষরোপণে জাতীয়ভাবে অবদান রাখায় এই শ্রেষ্ঠ পুরস্কারটি পান জমির উদ্দিন পারভেজ। জমির উদ্দিন পারভেজ রাউজান পৌর এলাকার আইলীখিল, ওয়াহেদের খীল, পূর্ব রাউজান, ঢালার মুখ, ফকির তকিয়া, কাজীরখিল সহ বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও চট্টগ্রাম রাঙ্গামাটি মহাসড়কের বিভিন্ন স্থানে ব্যক্তিগত উদ্যোগে প্রচুর ফলজ, বনজ, ঔষধি প্রায় আট হাজারের বেশি চারা লাগিয়ে এই এলাকাকে পরিবেশবান্ধব হিসেবে গড়ে তোলেন। এছাড়া তিনি রাউজানের সাংসদ এবিএম ফজলে করিম চৌধুরীর সহায়তায় তার এলাকায় মহিলা মাদ্রাসা ভবন, উপশহর প্রকল্প, মাস্টার দ্যা সুর্যসেন সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়, এবিএম ফজলে করিম চৌধুরী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় নির্মাণ করেছেন। পাশাপাশি খেলাধুলার জন্য তার এলাকায় একটি স্টেডিয়াম নির্মাণাধীন। জমির উদ্দিন পারভেজ তার এলাকায় শিল্প নগরী গড়ে তুলতে কাজ করে যাচ্ছেন।
এদিকে জমির উদ্দিন পারভেজ ১৯৯৯ সাল থেকে ৪ ধাপে রাউজান পৌরসভার কাউন্সিলর নির্বাচিত হন। তিনি উপজেলা ছাত্রলীগেরও সভাপতির দায়িত্ব পালন করে যাচ্ছেন। তিনি কয়েকবার বিলুপ্ত এনডিপি সন্ত্রাসী বাহিনী দ্বারা আক্রান্ত হন। সন্ত্রাসী হামলায় গুলিবিদ্ধ হয়ে বহুবার দেশ-বিদেশে চিকিৎসাও নিতে হয় তাকে। এরপরও সমােসেবা ও রাজনৈতিক হাল ছাড়েনি মেধাবী পারভেজ। ত্যাগী ও পরিশ্রমী জমির উদ্দিন পারভেজ জাতীয়ভাবে এই পুরস্কারে ভুষিত হওয়ার পর সমাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে খবরটি ছড়িয়ে পড়লে তাকে অভিনন্দন জানাতে থাকে ভক্ত ও অনুসারীরা। অনেকেই লিখেছেন স্যালুট পারভেজ ভাই আপনাকে। আপনি রাউজানের সুনাম বয়ে এনেছেন। আপনাকে ধন্যবাদ।
উল্লেখ্য, জমির উদ্দিন পারভেজ ২০১২ সালে সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির শ্রেষ্ঠ সভাপতি হয়ে জাতীয়ভাবে পুরস্কৃত হন। এ নিয়ে তিনি ২য় বারের মতো জাতীয় পুরস্কার পাওয়ার যোগ্যতা অর্জন করলেন।
জমির উদ্দিন পারভেজ আজ বিকালে ঢাকা থেকে ফোনে এই প্রতিনিধিকে জানান, ২য় বারের মতো জাতীয় পুরস্কার পাওয়ার ভাগিধার আমি একা নই, এই সম্মান আমার নেতা এবিএম ফজলে করিম চৌধুরী সহ রাউজানের জনসাধারণের।